‌অগাস্টা ওয়েস্টল্যান্ড চপার চুক্তি কেলেঙ্কারিতে আয়করের হানা দিল্লি-পুনের ৩০টি জায়গায়
‌অগাস্টা ওয়েস্টল্যান্ড চপার চুক্তি কেলেঙ্কারিতে আয়করের হানা দিল্লি-পুনের ৩০টি জায়গায়

ওয়েবডেস্ক  , ০৩ জানুয়ারী : ৩,৬০০০ কোটি টাকার ভিভিআইপি অগস্টা ওয়েস্টল্যান্ড চপার চুক্তি কেলেঙ্কারি মামলায় আয়কর দফতর দিল্লি-এনসিআর ও পুনের ৩০টি জায়গায় তল্লাশি অভিযান চালালো। বৃহস্পতিবার আয়কর দফতর সূত্রে জানানো হয়েছে যে চপার চুক্তি মামলায় জড়িত সুশেন মোহন গুপ্তা ও পুনের উদ্যোগপতি দীনেশ মুনোতের দফতর ও বিভিন্ন সম্পত্তিগুলিতে হানা দেয় আয়কর দফতরের একাধিক আধিকারিক।

আয়কর দফতর জানিয়েছে, '‌আয়কর বেশ কিছু নথি, হার্ড ড্রাইভ বাজেয়াপ্ত করেছে। তল্লাশি অভিযান এখনও চলছে।'‌ যদিও এর থেকে বেশি কিছু আয়কর দফতরের পক্ষ থেকে জানা যায়নি। প্রসঙ্গত গত বছরের ২৬ মার্চ ইডি গ্রেফতার করেন সুশেন মোহন গুপ্তাকে।

তাঁর বিরুদ্ধে অর্থ নয়ছয়ের অভিযোগ ওঠে। যদিও এই মামলায় বিশেষ সিবিআই আদালত থেকে তিনি জুনমাসে জামিন পেয়ে যান। এই মামলায় আর এক অভিযুক্ত রাজীব সাক্সেনা গত বছর দুবাই পালিয়ে গেলেও, ইডির হাতে তিনি পরে গ্রেফতার হন এবং এই মামলার কিছু তথ্য তিনি তদন্তকারী সংস্থাদের জানান। ডিসেম্বরেই অগস্টা ওয়েস্টল্যান্ড কেলেঙ্কারিতে কর ফাঁকি দেওয়া এবং অর্থ পাচারের অভিযোগে আয়কর বিভাগ অলঙ্কৃত গ্রুপে অভিযান চালিয়েছিল।

আয়কর বেসরকারী সংস্থায় তল্লাশির সময় যে নথিগুলি বাজেয়াপ্ত করেছে, তারা দাবি করেছে যে চপার চুক্তি চলাকালীন ভারতীয় প্রতিপক্ষকে দেওয়া কমিশনের গোপন বিষয়টি অবশেষে প্রকাশ করতে পারে আয়কর। ২০১৪ সালের জানুয়ারিতে ভারত অগস্টা ওয়েস্টল্যান্ডের সঙ্গে ১২টি চপার কেনার চুক্তি করে। কিন্তু অগাস্টা ওয়েস্টল্যান্ডের বিরুদ্ধে চুক্তি লঙ্ঘন করার ও প্রতারণার অভিযোগ ওঠে।

আরো পড়ুন