বেহাল ইলেক্ট্রনিক ট্রাফিক সিগনালের দৌলতে ব্যতিব্যেস্ত সাধারণ যান চালকরা , ক্ষোভ
বেহাল ইলেক্ট্রনিক ট্রাফিক সিগনালের দৌলতে ব্যতিব্যেস্ত সাধারণ যান চালকরা , ক্ষোভ

আগরতলা , ১১ সেপ্টেম্বর : রাজ্যের বিভিন্ন অংশে ট্রাফিক দুরবস্থার কথা আজ নতুন কিছু না। খোদ রাজধানীতেই ট্রাফিক ব্যবস্থার চরম বেহাল দশা। অবশ্য এবারে বেহাল দশার কারণ কিন্তু ভিন্ন। স্মার্ট সিটি আগরতলার সংস্কার কাজ চলছে জোরগতিতে। এমতাবস্থায় রাজধানীর অধিকাংশ জায়গাতেই ইলেক্ট্রনিক ট্রাফিক সিগন্যাল বসানো হয়েছে। বেশ কিছু জায়গায় তা ঠিকঠাকভাবে চলছেও বটে।  কিন্তু অধিকাংশ জায়গাতেই ট্রাফিক সিগন্যাল বিকলতার শিকার। জানা যায় টাইম টেবিল যেমন ঠিক নেই , ঠিক তেমনি ইলেক্ট্রনিক ট্রাফিক সিগনালের লাইট গুলিও বেহাল দশার শিকার। এমতাবস্থায় চরম বেকায়দায় সাধারণ যান চালকরা। কখন সিগন্যাল ছাড়বে তা ঠিকভাবে বোঝা না যাওয়ায় বিপাকে পড়তে হচ্ছে তাদের। এনিয়ে কর্তব্বরত  ট্রাফিক  জিজ্ঞাসা করা হলে তা তারা জানেন না বলেই উত্তর পাওয়া যায়। ফলে একদিকে যেমন সাধারণ মানুষের মাঝে ইলেক্ট্রনিক সিগনালের প্রতি অনাস্থা সৃষ্টি হচ্ছে ঠিক এরই অপরদিকে স্মার্ট সিটির বাস্তবতাও প্রশ্নচিহ্নের মুখে এসে দাঁড়াচ্ছে বলে ধারণা তথ্যাভিজ্ঞ মহলের। এদিকে শহর থেকে একটু ভিতরের দিকে গেলেই দেখা যায় ইলেক্ট্রনিক ট্রাফিক সিগন্যাল নিয়ে সাধারণ মানুষের খামখেয়ালিপনা। রানিরবাজার এলাকাতে থাকা ট্রাফিক সিগন্যাল কোনভাবেই মানছেন না কোন পথচারী। একই হাল মোহনপুর সহ জিরানিয়া এলাকার ট্রাফিক সিগনালের । এইসব এলাকাতে কেও মঞ্চে না ট্রাফিক সিগন্যাল। যে যখন খুশি ট্রাফিক সিগন্যাল ভঙ্গ করে চলে যাচ্ছে। আর আশ্চর্যের বিষয় হল সিগনালের পাশে দাঁড়িয়ে থাকা ট্রাফিক কর্মীরা শুধু দর্শক হিসাবে সব আইন ভঙ্গকারীদের দেখেও না দেখার ভান করেন। যার ফলে দিন দিন ট্রাফিক আইন ভাঙার প্রবণতা বাড়ছে বই কমছে না। দাবি উঠছে সিগন্যাল আধুনিকীকরণের পাশাপাশি কর্মীদের মাঝেও কাজের প্রতি মনোযোগী হওয়ার বিষয়টি উন্নত করা হোক।

আরো পড়ুন