অক্সিজেন বিভাগে যান্ত্রিক ত্রুটি সারাতে রাতেই জিবি হাসপাতালে বিধায়ক সুদীপ রায় বর্মন , স্বাস্থ্য দপ্তরের ভূমিকায় হাজারো প্রশ্ন !
অক্সিজেন বিভাগে যান্ত্রিক ত্রুটি সারাতে রাতেই জিবি হাসপাতালে বিধায়ক সুদীপ রায় বর্মন , স্বাস্থ্য দপ্তরের ভূমিকায় হাজারো প্রশ্ন !

আগরতলা , ১২ সেপ্টেম্বর : স্বাস্থ্য পরিষেবার বেহাল দশা যেন কোনভাবেই পিছু ছাড়ছে না রাজ্যের। আবারো জিবি হাসপাতালের জরুরি অবস্থার সময় পাশে দাঁড়ালেন প্রাক্তন স্বাস্থ্যমন্ত্রী তথা বর্তমান বিজেপি বিধায়ক সুদীপ রায় বর্মন। মধ্যরাতে আচমকা জিবি হাসপাতালের রোগী ও আত্মীয়  পরিজনদের ফোন যায় নাকি বিধায়ক সুদীপ রায় বর্মনের কাছে। অভিযোগ ছিল , হাসপাতালে অক্সিজেন বিভাগে যান্ত্রিক ত্রুটি দেখা দিয়েছে। যার ফলে রোগীরা সঠিকভাবে অক্সিজেন পাচ্ছেন না। আর এর ফলে ব্যাপক সমস্যায় বহু রোগী।কোভিড রোগীরা অক্সিজেনের ঘাটতির কারণে সমস্যায় পড়েছে তাই রাতেই জিবি ছুটে যান সুদীপবাবু।   বিধায়ক স্থানীয় একজন ইঞ্জিনিয়ারকে সাথে নিয়ে ছোটে যান জিবি হাসপাতালে। পরে যান্ত্রিক ত্রুটি সারিয়ে দিলে অক্সিজেন সরবরাহ নাকি স্বাভাবিক হয়। শনিবার সকালে বিষয়টি সামাজিক মাধ্যম সহ সংবাদ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়তেই জিবি হাসপাতালের পরিষেবা ও স্বাস্থ্য দপ্তরের ভূমিকা নিয়ে ব্যাপক সমালোচনার ঝড় শুরু হয়। এদিকে হাসপাতালের পরিষেবা ঠিক করার জন্য বর্তমানে প্রতিদিন জিবি হাসপাতালে যাচ্ছেন সাংসদ প্রতিমা ভৌমিক। তার পরও কেন এই বেহাল দশা এনিয়ে প্রশ্ন বিভিন্ন মহলে। এরইমাঝে জিবি হাসপাতালে যাওয়া ইঞ্জিনিয়ারের বিরুদ্ধে ইতিমধ্যেই থানায়  দায়ের করা হয় বলে খবরে ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে সমগ্র রাজ্যে। জানা যায় , ওই ইঞ্জিনিয়ারের বিরুদ্ধে নাকি হাসপাতাল কতৃপক্ষ মামলা করেছে। সব মিলিয়ে বলা যায় জিবি হাসপাতালের সার্বিক পরিস্থিতি নিয়ে রাজনীতির নোংরা খেলা চলছে বর্তমানে। যা রাজ্যের ভবিষ্যতের জন্য একেবারেই সুখকর নয়  বলে ধারণা অভিজ্ঞ মহলের। 

আরো পড়ুন