জন্মদিনে অজানা 'মিসাইল ম্যান' , পড়াশোনার খরচ চালাতে বিক্রি করেছেন খবরের কাগজও
জন্মদিনে অজানা 'মিসাইল ম্যান' , পড়াশোনার খরচ চালাতে বিক্রি করেছেন খবরের কাগজও

ওয়েবডেস্ক , ১৫ অক্টোবর : আজ তাঁর ৮৯ তম জন্মদিন, দেশের মানুষের কাছে তিনি পরিচিত 'মিসাইলম্যান' হিসাবেই। ১৯৩১ সালের ১৫ অক্টোবর, রামেশ্বরমে জন্ম হয় এপিজে আবদুল কালামের।  তাঁর বর্ণময় জীবন ব্যাখ্যা করার জন্য যতই শব্দ ব্যয় করা হোক না কেন ততই কম পড়বে। তিনি ছিলেন একজন বিজ্ঞানী এবং একজন ইঞ্জিনিয়ারও বটে। এবার দেশের সর্বোচ্চ সম্মান ভারতরত্ন সম্মানেও ভূষিত হয়েছিলেন। শুধু তাই নয়, তিনি দেশের মানুষের রাষ্ট্রপতি হিসাবেই পরিচিত ছিলেন।

                                     শুধু তাই নয় এপিজে আবদুল কালাম কিন্তু ডিফেন্স রিসার্চ অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট কর্পোরেশন (ডিআরডিও) এবং ভারতের মহাকাশ গবেষণা সংস্থা ইসরো-তেও একজন বিজ্ঞানী হিসাবে কাজ করেছেন এবং দেশের জন্য বহু সামরিক ক্ষেপণাস্ত্র প্রস্তুত করতে সাহায্য করেছিলেন। পরে দেশের রাষ্ট্রপতি হিসাবেও নিজের দায়িত্ব ও কর্তব্য পালন করেছেন তিনি। রাষ্ট্রপতির মেয়ার ফুরোনোর পরে তিনি আবার নিজের পড়াশোনা, লেখালেখি এবং জনসেবামুলক কাজে ফিরে আসেন।

                                    তাঁর জীবনে তিনি যে উচ্চতার শিখরে উঠেছেন তাঁর সেই যাত্রাপথ কিন্তু খুব একটা মসৃণ ছিল না। এক জেলে পরিবার থেকে এসেছেন। পরিবারে ছিল পাঁচ ভাই এবং পাঁচ বোন। তাঁর বাবা ছিলেন একজন নাবিক, তিনি জেলেদের নৌকো ভাড়া দিতেন। তাঁর ছোটবেলা কেটেছে অত্যন্ত দারিদ্রের মধ্যে। এত বড় পরিবারকে দেখভাল করার দায়িত্ব তাঁর বাবার একার পক্ষে নেওয়া খুব কঠিন হয়ে পড়েছিল, তাই শৈশবে কালামকে খবরের কাগজও বিক্রি করতে হয়েছিল। রেলওয়ে স্টেশনে খবরের কাগজ বিক্রি করে যে পয়সা তিনি পেতেন তাই দিয়েই নিজের লেখাপড়ার খরচ চালাতেন। চরম প্রতিকূল পরিস্থিতিতে জন্মেও নিজের লড়াই কিন্তু তিনি জারি রেখেছেন, কোনও পরিস্থিতিতেই হাল ছেড়ে দেননি তিনি।

আরো পড়ুন