নিখোঁজ ব্যক্তির খোঁজ দিতে কি তবে ব্যর্থ পুলিশ ? ধোঁয়াশার প্রহর গুনছে পরিবার, পড়ুন বিস্তারিত.......
নিখোঁজ ব্যক্তির খোঁজ দিতে কি তবে ব্যর্থ পুলিশ ?  ধোঁয়াশার প্রহর গুনছে পরিবার,  পড়ুন বিস্তারিত.......

সঞ্জিত দাস, তেলিয়ামুড়া , ০৮ ফেব্রুয়ারী : ৭-৮ দিন অতিক্রান্ত হয়ে গেলেও এখন পর্যন্ত এক নিখোঁজ ব্যক্তিকে উদ্ধার করতে ব্যর্থ তেলিয়ামুড়া থানার পুলিশ।  পরিবার বার বার থানার দ্বারস্থ হয়েও কোন আশার আলো না দেখতে পেয়ে অবশেষে সংবাদমাধ্যমের দ্বারস্থ হলো সোমবার। ঘটনার বিবরণে জানা যায়, তেলিয়ামুড়া থানাধীন ইচারবিল এলাকার বাসিন্দা মৃত ধীরেন্দ্র চন্দ্র চৌধুরীর ছেলে বছর ৫৪ এর বিকৃত মস্তিষ্কের উত্তম কুমার চৌধুরী  গত মাসের ৩১ জনুয়ারি রবিবার বিকাল আনুমানিক ৫:০০-৫:৩০ মিনিট নাগাদ বাড়ি থেকে বেরিয়ে যায়। বহু খোঁজাখুঁজি করেও কোন হদিস মেলেনি উত্তমের। 

  ফলে বাধ্য হয়ে পরিবারের লোকজন তেলিয়ামুড়া থানার দ্বারস্থ হয়।জানা যায়, উত্তম আজ থেকে প্রায় ১০-১২ বছর আগে থেকে মানসিক বিকারগ্রস্থ ছিল। প্রায়শই উত্তম  বাড়ি থেকে বেরিয়ে একটা নির্দিষ্ট সময় সে ঘরমুখী হত। কিন্তু রবিবার বিকেলে বাড়ি থেকে বেরিয়ে আর বাড়ি ফিরে আসেনি। পরিবারের লোকজন খোঁজাখুঁজি শুরু করে উত্তমের কোন হদিস না মেলায় বাধ্য হয়ে তেলিয়ামুড়া থানার দ্বারস্থ হয় তার পরিবার। উত্তম বিয়ে করেছিল কিন্তু কয়েক বছর পূর্বে তার স্ত্রী উত্তমকে ছেড়ে তার বাপের বাড়ি চলে যায়। উত্তম একা একাই থাকতেন।

   উত্তমের নিখোঁজের বিষয়টি থানায় জানানোর পরেও পরিবার-পরিজনরা নিজ উদ্যোগে স্থানীয় সংবাদ মাধ্যমে বিজ্ঞাপন ও দিয়েছিল  যদি কোন স্বহৃদয় ব্যক্তি উত্তমকে দেখে পরিবার-পরিজনদের খবর পাঠায় সেই আশা নিয়ে। কিন্তু আশা নিরাশা হয়ে গেল। বাড়ির ছেলে বাড়িতে নেই আজ ৭-৮ দিন অতিক্রান্ত হতে চলছে। ফলে এক প্রকার বাধ্য হয়ে থানা বাবুদের প্রতি আস্থা হারিয়ে সংবাদমাধ্যমে দ্বারস্থ হলো উত্তমের বড় দুই ভাই সহ পরিবারের লোকজন।

   এখন দেখার বিষয় আমাদের চ্যানেলের সংবাদ সম্প্রচারের পর আদৌ কবে নাগাদ তেলিয়ামুড়া থানার পুলিশ বাবুরা নিখোঁজ উত্তম কে উদ্ধার করতে সক্ষম হয়।

আরো পড়ুন