সিন্ধু জলবন্টন নিয়ে ভারত-পাকিস্তান মুখোমুখি, শীঘ্রই দিল্লিতে বৈঠক
 সিন্ধু জলবন্টন নিয়ে ভারত-পাকিস্তান মুখোমুখি, শীঘ্রই দিল্লিতে বৈঠক

ওয়েবডেস্ক , ২২ মার্চ : সিন্ধু নদের জল বন্টন সংক্রান্ত ইস্যু নিয়ে মুখোমুখি হতে চলেছে ভারত ও পাকিস্তান। প্রায় ২ বছর পর ২৩ ও ২৪ মার্চ এই মিটিং হওয়ার কথা। ভারত এবং পাকিস্তান, দুই পক্ষই তাদের ইস্যু নিয়ে এই মিটিংয়ে কথা বলবে। ভারত লাদাখের জলবিদ্যুত্‍ প্রকল্প নিয়ে তার অবস্থান আগেই পরিষ্কার করে দিয়েছে। কিন্তু পাকিস্তান এর বিরোধিতা করেছে। সোমবার সকাল ১০ টা নাগাদ পাকিস্তানের প্রতিনিধিদল ভারতে এসে পৌঁছয়। পাকিস্তানের তরফে জানানো হয়েছে, জল বন্টন নিয়ে কথা বলতেই তাদের প্রতিনিধি দল ভারতে এসে পৌঁছেছে। পারমানেন্ট ইন্দাস কমিশনের মিটিংয়ে অংশ নেবেন প্রতিনিধি দলের সদস্যরা। জল বন্টন নিয়ে তাঁরা ভারতের সঙ্গে আলোচনা করবেন। নয়া দিল্লিতে এই ১১৬তম পারমানেন্ট ইন্দাস কমিশনের মিটিং অনুষ্ঠিত হবে ২ দিন- ২৩ মার্চ ও ২৪ মার্চ। এ কথা জানিয়েছেন বিদেশ মন্ত্রকের মুখপাত্র জাহিদ হাফিজ চৌধুরী।
তিনি বলেছেন, এই চুক্তির মধ্যস্থিত ইস্যুগুলি নিয়ে মিটিংয়ে আলোচনা হবে। পাকাল ডাল ও লোয়ার কালনাই জলবিদ্যুত্‍ প্রকল্প নিয়েও দুই দেশের মধ্যে কথাবার্তা হবে। পশ্চিমের নদীগুলিতে ভারতের প্রজেক্ট সম্পর্কে পাকিস্তানিকে জানানো হবে এই মিটিংয়ে। পাশাপাসি ভারতের বন্যা পরিস্থিতি সংক্রান্ত তথ্যও তাদের দেওয়া হবে। জানা গিয়েছে পাকিস্তানের সিন্ধু নদ বিষয়ক কমিশনার সইদ মহম্মদ মেহর আলি শাহ এই মিটিংয়ে সে দেশের হয়ে প্রতিনিধিত্ব করবেন। ভারতের তরফে পরিচালনা করবেন ইন্ডিয়াস ইন্ডাস কমিশনির পি কে সাক্সেনা। মিটিংয়ে সেন্ট্রাল ওয়াটার কমিশন, সেন্ট্রাল ইলেকট্রিসিটি অথরিটি ও ন্যাশনাল হাইড্রোলিক পাওয়ার কর্পোরেশনের প্রতিনিধিরাও থাকবেন।
সিন্ধু জল চু্ক্তি অনুসারে, দুই কমিশনই বছরে একবার করে মিলিত হবে। ভারত বা পাকিস্তানে এই মিটিং হতে পারে। কিন্তু জম্মু ও কাশ্মীরে ৩৭০ ধারা বাতিলের পর এই মিটিং করা হয়নি। পরে একে দুটি কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে ভেঙে দেওয়া হয়- লাদাখ এবং জম্মু ও কাশ্মীর। এই ঘটনার ২ বছর পর পাকিস্তান ও ভারতের মধ্যে সিন্ধু জল বন্টন নিয়ে ফের মিটিং অনুষ্ঠিত হতে চলেছে মঙ্গলবার।
 

আরো পড়ুন